জেল থেকে ফিরেই সোনার পায়েল উপহার দিলেন পরীমনি!

পরীমনির মুক্তির আন্দোলনে সরব থাকা সহকর্মী রাজ রিপাকে এবার নিজের সোনার পায়েল উপহার দিলেন পরীমনি। জেল থেকে বের হয়ে বাসায় আসার পরই পরীমনি রাজ রিপাকে ডেকে নেন এবং উপহারটি তার হাতে তুলে দেন। 

২৭ দিনের কারাবন্দীর পর পয়লা সেপ্টেম্বর পরীমনি বাসায় ফিরেছেন। এরপর দিনই তার সঙ্গে দেখা করেন রাজ রিপা। পরীও তাকে ‘ছোট বোন’ বলে নিজের পায়ের পায়েল খুলে রাজ রিপাকে দেন।

পরে পরীমনিরকে বড় বোন সম্বোধন করে উপহারের সেই ছবি ফেসবুকে শেয়ারও করেছেন এই নবাগতা। সেখানে দেখা যায়, দুজনই পায়ে সোনার পায়েল পড়ে আছেন।

রাজ রিপা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘পরীমনি আপুর সাথে আমার আগে কখনো দেখা হয়নি। আমি শুধু নামে চিনতাম তাকে। আমার খুব ইচ্ছা ছিল তাকে আমি সামনাসামনি শুভেচ্ছা জানাবো। সেটাই হলো।’

তিনি আরও বলেন, ‘আপুর আপ্যায়নে আমি মুগ্ধ। একটা মানুষ এত সুইট হয় কীভাবে!’

পরীমনি ও রাজ রিপা- দুজনই সহকর্মী। কিন্তু একই ছবিতে করা হয়নি কোনও কাজ। ৩০টিরও বেশিতে পরীমনি কাজ করলেও উত্তরসূরি রাজ রিপার মুখ্য ভূমিকায় এখনও কোনও ছবি মুক্তি পায়নি। 
 
নবাগত এ চিত্রনায়িকা বর্তমানে অভিনয় করেছেন ‘মুক্তি’ নামের একটি সিনেমায়। এছাড়াও তাকে দেখা গেছে ‘পোড়ামন ২’-এ। 

আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন গত বুধবার (১ সেপ্টেম্বর)। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি। মাদক মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে এই কারাগারেই বন্দি ছিলেন নায়িকা।

এর আগে মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) জামিন পান তিনি। ৫০ হাজার টাকা মুচলেকায় পুলিশ রিপোর্ট দেওয়ার আগ পর্যন্ত তাকে জামিন দেওয়া হয়।
 
শুধু জামিনের জন্য এর আগে তিনবার আবেদন করেছিলেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। রাষ্ট্রপক্ষের জোরালো আপত্তির মুখে কোনোবারই সাড়া পাননি। উল্টো তিন দফায় ৭ দিন রিমান্ডে নেওয়া হয় পরীকে।

বারবার জামিন আবেদনের শুনানি পেছানোয় বিড়ম্বনায় পড়েন পরীমনি। আদালতে গণমাধ্যমকে উদ্দেশ্য করে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন তিনি। তৃতীয় দফায় রিমান্ড শুনানি শেষে নিয়ে যাওয়ার সময় টানাহেঁচড়ায় পড়েও যান পরী।

এরপর চতুর্থ দফায় জজ আদালতে জামিন চান পরীমনি। কিন্তু শুনানির তারিখ দেরিতে দেওয়ায় আবারও ঝুলে যায় পুরো প্রক্রিয়া। অবশেষে উচ্চ আদালতের হস্তক্ষেপে মঙ্গলবার শুনানি হয়। ৫০ হাজার টাকা মুচলেকায় পুলিশ রিপোর্ট দেওয়ার আগ পর্যন্ত জামিন দেন আদালত।

গত ৪ আগস্ট রাজধানীর বনানীর বাসা থেকে পরীমনিকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। তার বাসা থেকে মদ, আইস, এলএসডি উদ্ধারের দাবি করে সংস্থাটি। রিমান্ডের সময়সীমা বাদে কাশিমপুর কারাগারে ১৯ দিন ছিলেন এ চিত্রনায়িকা। আইনি প্রক্রিয়া শেষে বুধবার কারামুক্ত হতে পারেন তিনি।

পাঠকের মন্তব্য