বিশ্ব করোনায় আক্রান্ত-মৃত্যুর যে অবস্থা

মহামারি করোনার ধাক্কা সামলাতে টিকা চলে এলেও বিশ্বের প্রায় সব দেশেই কমবেশি মৃত্যু হচ্ছে। করোনার নতুন নতুন ভ্যারিয়েন্টের কাছে বিশ্বের ক্ষমতাধর রাষ্ট্রগুলোও বিপর্যস্ত। পৃথিবীজুড়ে টিকা কার্যক্রম চললেও সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার ওঠানামা করছে।

বিশ্বব্যাপী করোনার পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বাংলাদেশ সময় রোববার (৩ অক্টোবর) সকাল ৮টা পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে মৃত্যু ও শনাক্ত কমেছে। এ সময় মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৬৯০ জনের, শনাক্ত হয়েছে ৩ লাখ ৪৯ হাজার ৭৪২ জন।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় মোট মারা গেছেন ৪৮ লাখ ১১ হাজার ৫৬৩ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ২৩ কোটি ৫৪ লাখ ১৭ হাজার ৪ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২১ কোটি ২২ লাখ ২৬ হাজার ৭২০ জন।

এর আগে, শনিবার (২ অক্টোবর) সকাল ৮টা পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে। এ সময় মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ৭ জনের, শনাক্ত হয়েছে ৪ লাখ ৯৬ হাজার ৮০০ জন।
 
করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছে ৪ কোটি ৪৪ লাখ ৯০ হাজার ৮৯৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ৭ লাখ ১৯ হাজার ৬৭৪ জনের।
 
আক্রান্তে দ্বিতীয় এবং মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত করোনায় ৩ কোটি ৩৮ লাখ ১২ হাজার ৫৫৯ জন সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৪৮ হাজার ৮৪৬ জনের।
 
আক্রান্তে তৃতীয় ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত মোট সংক্রমিত হয়েছেন ২ কোটি ১৪ লাখ ৫৯ হাজার ১১৭ জন এবং এখন পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৯৭ হাজার ৭৪৯ জনের।
 
আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ স্থানে থাকা যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৭৮ লাখ ৭১ হাজার ১৪ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক লাখ ৩৬ হাজার ৯১০ জন।
 
পঞ্চম স্থানে থাকা রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭৫ লাখ ৬০ হাজার ৭৬৭ জন। মারা গেছেন ২ লাখ ৯ হাজার ২৮ জন।
 
আক্রান্তের তালিকায় তুরস্ক ষষ্ঠ, ফ্রান্স সপ্তম, ইরান অষ্টম, আর্জেন্টিনা নবম এবং স্পেন দশম অবস্থানে রয়েছে। এ তালিকায় বাংলাদেশে অবস্থান দাঁড়িয়েছে ২৯তম।
 
২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২২৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

পাঠকের মন্তব্য