বাণিজ্য মেলায় নজর কাড়ছে চামড়াজাত পণ্য

২৬তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় বেড়েছে চামড়াজাত পণ্যের বিক্রি। মান অনুযায়ী দামে সন্তুষ্ট ক্রেতারা। গতবছরের চেয়ে বিদেশি ক্রেতাও বেড়েছে বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

গেলবারের চেয়ে অর্ধেকেরও কম স্টল-প্যাভিলিয়ন বসেছে এবারের ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায়। বেড়েছে চামড়াজাত পণ্যের বিক্রি। প্রত্যাশার চেয়ে ভালো সাড়া পাচ্ছেন বলে জানান উদ্যোক্তারা। 

জুতা, বেল্ট, বিভিন্ন ধরনের ব্যাগ, জ্যাকেট, ভিজিটিং কার্ড হোল্ডারসহ দরকারি অনুষঙ্গ মিলছে এসব স্টলে। চামড়া ও চামড়ার সঙ্গে বিভিন্ন কাঁচামালের ব্যবহারের কারণে কিংবা চামড়া প্রক্রিয়ার ভিন্ন পদ্ধতির কারণে দামেও রয়েছে ভিন্নতা।

প্যাভিলিয়নে আসা ক্রেতা-দর্শনার্থীরা বলেছেন, মেলায় বাংলাদেশের চামড়াজাত পণ্য পেয়ে খুবই খুশি হচ্ছি। আমাদের আঞ্চলিক চামড়ার পণ্যগুলো খুব সুন্দরভাবে এখানে প্রদর্শন করা হচ্ছে। তবে, যারা এই শিল্পে উদ্যোক্তা তাদের কারিগরি সহায়তা দরকার, প্রয়োজন ভালো পরামর্শ বলেও মত ক্রেতাদের। তাহলে পণ্যের মান আরও ভাল হওয়ার পাশাপাশি ভিন্নতাও আসবে বলে মনে করেন তারা।

২৬তম এ বাণিজ্য মেলায় দেশীয় চামড়াজাত পণ্যের স্টল সাজিয়েছেন যে ক'জন উদ্যোক্তা; বিগত আসরগুলো থেকে এবার ভিন্ন তাদের অভিজ্ঞতাও। ভালো বিক্রির সঙ্গে পাচ্ছেন ভিনদেশি ক্রেতাও; যাদের সঙ্গে জমে উঠছে বৈদেশিক বাণিজ্য।

উদ্যোক্তারা জানান, এসব নান্দনিক পণ্যের চাহিদা ক্রমেই বাড়ছে। বাজারে টিকতেই নতুন নতুন ডিজাইন নিয়ে কাজ করতে হয়। পাশাপাশি দেওয়া হচ্ছে বিক্রয়োত্তর সেবার নিশ্চয়তাও। তাই কিছুটা চ্যালেঞ্জ নিয়েই তাদের এই সেক্টরে টিকে থাকতে হচ্ছে।

উদ্যোক্তারা বলেছেন, অনেক দূরে থেকে সবাই এখানে পণ্য কিনতে আসছে। যতটুকু আশা করেছিলাম ততটুকু খারাপও হচ্ছে না। আগারগাঁও এর সঙ্গে তুলনা করলে তো কোনো লাভ নেই। যতটা খারাপ ভেবে ছিলাম ততটা খারাপও হয়নি।

মেয়েদের ব্যবহার উপযোগী চামড়াজাত পণ্যই বেশি বিক্রি হচ্ছে বলে জানান উদ্যোক্তারা।

পাঠকের মন্তব্য