ঝক্কি এড়াতে কেনাকাটা এখণ অনলাইনে, থাকছে ক্যাশব্যাক

ঈদ উপলক্ষ্যে বিপনিবিতানগুলোর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাহারি পোশাক ও জুতাসহ নানা পণ্যের সমাহার নিয়ে হাজির হয়েছেন অনলাইন উদ্যোক্তারা। যেখানে ক্রেতা আর্কষণে প্রতিটি পণ্যে মিলছে মূল্যছাড়। এরসঙ্গে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে টাকা পরিশোধে রয়েছে ক্যাশবাক অফার। যানজটের ঝক্কি এড়িয়ে অনেকেই তাই প্রয়োজনীয় কেনাকাটা সেরে নিচ্ছেন অনলাইনে।

দেশীয় শাড়িতে নিজস্বতায় আঁকা নকশা জীবন্ত করা হচ্ছে সুঁই-সুতার মাধ্যমে। ওয়ান পিসসহ অন্যান্য পোশাকে বসানো হচ্ছে ব্লক কিংবা লাগানো হচ্ছে লেস। বাহারি এসব শাড়ি, ওয়ান পিস কিংবা ছেলেদের পাঞ্জাবি ঠাঁই করে নিচ্ছে ই-কমার্স কিংবা ফেসবুকের নীল–সাদা দুনিয়ায়।

ঈদ উপলক্ষে এবার বেশ জোরেশোরেই মাঠে নেমেছে অনলাইন উদ্যোক্তারা। জানালেন, নিজস্ব শোরুমে বিক্রির পাশাপাশি ফেসবুক পেইজ কিংবা প্রতিষ্ঠিত ই-কমার্স সাইটে প্রদর্শন করছেন নিজেদের পণ্য। এসব অনলাইন প্ল্যাটফর্মে কেনাকাটায় ক্রেতাদের জন্য রয়েছে ২০ শতাংশ থেকে ৫০ শতাংশ মূল্যছাড়। 

আবার মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা পরিশোধ করলে ২০ শতাংশ পর্যন্ত ক্যাশব্যাক থাকছে।

শুধু মূল্যছাড়ই নয়; রাজধানীর ভেতরে একদিনেই পণ্য ডেলিভারির নিশ্চয়তা দিচ্ছেন অনেক অনলাইন উদ্যেক্তা। কেউ কেউ আবার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অর্ডারের সুবিধা রাখছেন। এতে দিনের মধ্যেই পণ্য হাতে পাচ্ছেন ক্রেতা।

আস্থার সংকট থাকলেও যানজটের ধকল এড়াতে কর্মজীবীদের অনেকে অনলাইনেই সেরে নিচ্ছেন প্রয়োজনীয় কেনাকাটা।

শুরুতে বিক্রি কিছুটা কম থাকলেও ১০ রোজার পর থেকে বেচাকেনা জমে উঠবে বলে আশা করছেন উদ্যোক্তারা।

পাঠকের মন্তব্য